শূন্যস্থানে ভারী ও হালকা বস্তু একইসঙ্গে পড়বে এটা কতটা সত্যি?

শূন্যস্থানে ভারী ও হালকা বস্তু একইসঙ্গে পড়বে এটা কতটা সত্যি?

21 বার প্রদর্শিত
"বিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (365 পয়েন্ট)
Like

1 উত্তর

শূন্যস্থানের কল্পনা অবাস্তব। কেননা স্থান শূন্য হলে ভারী ও হালকা বস্তু একই সংগে পড়বে। তার মতে এটা অযৌক্তিক। কারণ ভার হল বস্তুর অন্তর্নিহিত গুণ। এভাবে শূন্যস্থানের অস্তিত্ব অস্বীকার করে তিনি আণবিক মতবাদকেই উড়িয়ে দিয়েছেন। তাঁর মতে মহাবিশ্বে কোন শূন্যস্থান নেই।

সমগ্র মহাবিশ্ব বস্তুতে ভরপুর। বস্তুর মৌল উপাদান হল মূলত: জল, মাটি, বায়ু ও আগুন প্রাচীন গ্রীক মনীষীরা যা বলেছিলেন । যেহেতু অ্যারিস্টটল বলেছেন তাই এই মতবাদই অভ্রান্ত বলে বিবেচিত হয়েছিল। প্রায় দুহাজার বছর যাবৎ এই মতবাদ মানুষের চিন্তা ও চেতনাকে এমন আচ্ছন্ন করে রেখেছিল যে বিদ্বৎ সমাজেও পরমাণুবাদ প্রতিষ্ঠা লাভ করতে পারেনি।

বিজ্ঞান রেনেসকালে বিশেষ করে গ্যালিলিওর পরবর্তীকালে বিজ্ঞানীরা আবার পরমাণুবাদের প্রতি আকৃষ্ট হন। পরমাণুবাদের প্রথম বৈজ্ঞানিক ব্যবহার পরিলক্ষিত হয় নিউট্রনের গ্যাস বলবিদ্যায়।গ্যাসের সম্প্রসারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে তিনি শূন্যস্থানে গ্যাস কণা বা অণুর ধাবিত হওয়ার ধারণা প্রয়ােগ করেছিলেন। তাঁর আলােক তত্ত্বেও তিনি গতিময় কণার ধারণা পােষণ করেছিলেন। তবে বৈজ্ঞানিকভাবে সর্বপ্রথম পরমাণুর অস্তিত্ব প্রমাণ করেন জন ডাল্টন ১৮০৩ খ্রিস্টাব্দে। বিভিন্ন রাসায়নিক যৌগিক বস্ত্র এবং পদার্থের রূপান্তর নিয়ে গবেষণা করে তিনি এই সিদ্ধান্তে উপনীত হন যে পদার্থ অতি ক্ষুদ্র অসংখ্য বিচ্ছিন্ন পরমাণু দ্বারা গঠিত। পরমাণুরা একক এবং অবিভাজ্য।

 একই মৌলিক পদার্থের পরমাণুরা অভিন্ন। পরমাণুরা প্রত্যেকে প্রত্যেকের সংগে একটি আকর্ষণী বলে সুসংবদ্ধ অবস্থায় থাকে। অবস্থাভেদে এই আকর্ষণী বলের তারতম্য ঘটে এবং সে কারণেই পদার্থের রূপান্তর সম্ভব হয়। ডাল্টনের এই পরমাণুবাদই আধুনিক কণা বিজ্ঞানের মূল ভিত্তি। তবে ডাল্টনের তত্ত্বের কিছুটা সীমাবদ্ধতাও রয়েছে। ডাল্টন তত্ত্ব গে-লুসাকের গ্যাসসূত্র ব্যাখ্যা করতে সক্ষম নয়। গে-লুসাকের সূত্রে রাসায়নিক সংযােগের ক্ষেত্রে গ্যাসসমূহ পারস্পরিক আয়তনে সরল অনুপাতে যুক্ত হয়। যেমন দুই একক আয়তনের হাইড্রোজেনের সংগে এক একক আয়তনের অক্সিজেন মিলিত হয়ে দুই একক আয়তনের জলীয় বাষ্প উৎপন্ন করে। এর অর্থ হল এই যে, সম-আয়তনের বিভিন্ন প্রকার গ্যাসের পরমাণু সংখ্যার মধ্যে একটি সরল সম্পর্ক বিদ্যমান।

 এ সম্পর্কে বার্জেলিয়াসের প্রস্তাবনা হল (১৮১১), একই উষ্ণতায় এবং একই চাপে সম-আয়তনের সকল গ্যাসে সমান সংখ্যক পরমাণু থাকে। এই প্রস্তাবনা অনুযায়ী হাইড্রোজেনের দুটি পরমাণু একটি অক্সিজেন পরমাণুর সংগে মিলিত হয়ে দুই পরমাণু বাষ্প উৎপন্ন করে। তাহলে এক পরমাণু হাইড্রোজেনের সংগে পরমাণু অক্সিজেন যুক্ত হয়ে নিশ্চয়ই এক পরমাণু বাষ্প উৎপন্ন করবে। এই সিদ্ধান্ত ডাল্টন পরমাণু তত্ত্বের বিরােধী। কেননা ডাল্টন তত্ত্বে পরমাণুরা বিভাজ্য নয়। ১৮১১ খ্রিস্টাব্দে অ্যামাদিও অ্যাভািগেড্রো অণু এবং পরমাণুর মধ্যে পার্থক্য টেনে এই সমস্যার সমাধান করেন। তিনি বলেন, পদার্থের স্বাধীন অস্তিত্বধর্মী ক্ষুদ্রতম কণা হল অণু । এই অণুরা পরমাণুর সমন্বয়ে গঠিত এবং বিভাজ্য। পার্থিব পরিবেশে পরমাণুর স্বাধীন অস্তিত্ব থাকে না।

অণুর ধারণা থেকে তিনি প্রমাণ করলেন, একই উষ্ণতায় এবং চাপে সম আয়তনের সকল প্রকার গ্যাসে সমান সংখ্যক অণু থাকে। এই প্রকল্পের সাহায্যে ডাল্টনের পরমাণু তত্ত্বের ভিত্তিতে গে-লুসাকের গ্যাস সূত্র সহজে ব্যাখ্যা করা যায় । এছাড়াও বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষায় অ্যাভাগেড্রোর অণু এবং পরমাণুর ধারণা সঠিক বলে প্রমাণিত হয়েছে। আমরা আমাদের চারপাশে যেসব বস্তু দেখি তা সবই পরমাণু দ্বারা গঠিত। পরমাণু আছে ৯২ রকমের। একই রকম পরমাণু দ্বারা গঠিত বস্তুকে বলা হয় মৌলিক পদার্থ । বিভিন্ন মৌলিক পদার্থের সমন্বয়ে সৃষ্টি হয় যৌগিক পদার্থের । সবচেয়ে হালকা পরমাণু হল হাইড্রোজেন এবং সবচেয়ে ভারী পরমাণু ইউরেনিয়াম।বহুকাল পর্যন্ত ধারণা ছিল।

পরমাণুরা মৌলিক এবং অবিভাজ্য। কিন্তু ১৮৯৭সালে ইংরেজ পদার্থ বিজ্ঞানী জোসেফ জন টমসন ক্যাথােড রশ্মির প্রকৃতি নির্ণয় করতে গিয়ে পরমাণুর ভেতরে এক অতি ক্ষুদ্র কণিকার সন্ধান পেলেন । এই কণিকাটি ঋনাত্মক আধানযুক্ত এবং এর ভর সমগ্র কণিকার ভরের এক হাজার ভাগের একভাগ মাত্র। এই কণাটিই হল আমাদের অতি পরিচিত ইলেকট্রন।
উত্তর প্রদান করেছেন (365 পয়েন্ট)

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
29 সেপ্টেম্বর 2021 "ইসলাম ধর্ম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md. Babu (3,351 পয়েন্ট)
1 উত্তর
15 সেপ্টেম্বর 2021 "বাংলা ব্যাকরণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Captain Kanak (7,002 পয়েন্ট)
1 উত্তর
1 উত্তর
21 অক্টোবর 2021 "বিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sujit Ray (10,251 পয়েন্ট)

17,573 টি প্রশ্ন

17,275 টি উত্তর

24 টি মন্তব্য

54,717 জন সদস্য

22 Online Users
0 Member 22 Guest
Today Visits : 27548
Yesterday Visits : 32054
Total Visits : 16063191
...