ইলেকট্রন এর বৈশিষ্ট গুলো কেমন?

ইলেকট্রন এর বৈশিষ্ট গুলো কেমন?

19 বার প্রদর্শিত
"বিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (365 পয়েন্ট)
Like

1 উত্তর

যেহেতু পরমাণু বৈদ্যুতিক ভাবে নিরপেক্ষ এবং ইলেকট্রনের আধান ঋনাত্মক তাই পরমাণুতে অবশ্যই এমন বস্তু থাকতে হবে যার আধান ইলেকট্রনের সমান কিন্তু বিপরীত অর্থাৎ ধনাত্মকল। টমসন মনে করতেন, ধনাত্মক আধানের বস্তু পরমাণুর অভ্যন্তরে পুডিং-এর মত সমরূপে বিতরিত থাকে এবং ইলেকট্রনরা তার মধ্যে সুষমভাবে ছড়িয়ে থাকে ।

টমসনের এই ধারণাকে ভুল প্রতিপন্ন করে নিউজিল্যান্ডের পদার্থ বিজ্ঞানী আর্নেস্ট রাদারফোর্ড প্রমাণ করলেন (১৯১১) যে, পরমাণুর একটি অভ্যন্তরীণ গঠন আছে। পরমাণুর সংগে ধনাত্মক ‘আলফা’ কণিকার সংঘর্ষ ঘটিয়ে -কণিকার গতিপথের বিচ্যুতি বিচার করে তিনি এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন যে, পরমাণুর ধনাত্মক আধানের সমগ্র বস্তু তার কেন্দ্রে সন্নিবিষ্ট ।

ইলেকট্রনরা এই কেন্দ্রকে ঘিরে আবর্তিত হয়। প্রথমে ধারণা করা হয়েছিল পরমাণুর কেন্দ্রক বিভিন্ন সংখ্যক ধনাত্মক আধান যুক্ত কণা দ্বারা গঠিত। তাই এগুলাের নাম দেয়া হয়েছিল ‘প্রােটন'। প্রােটন শব্দটি এসেছে গ্রীক প্রােটস্ শব্দ থেকে। প্রােটস্ শব্দের অর্থ হল ‘প্রথম'। তখন বিশ্বাস ছিল এই কণাগুলােই বস্তু গঠনের প্রাথমিক উপাদান। ১৯৩২ সালে রাদারফোর্ডের সহকর্মী জেমস চ্যাডউইক আবিষ্কার করলেন যে পরমাণুর কেন্দ্রীনে প্রােটন ছাড়া আরাে এক রকম কণিকা আছে। এই কণিকার নাম হল নিউট্রন।

 নিউট্রন হল পরমাণুর অভ্যন্তরের সব চেয়ে ভারী কণা, তবে আধানহীন। নিউট্রনের ভর প্রােটনের ভরের থেকে কিছু বেশি। প্রােটনের ভর হল ইলেকট্রনের ভরের চেয়ে প্রায় ১৮৩৬ গুণ বেশি। কিন্তু প্রােটন নিউট্রন মিলে যে কেন্দ্রক' সমগ্র পরমাণুর আকারের তুলনায় তা কিন্তু অতিক্ষুদ্র। পরমাণুর ব্যাস কেন্দ্রকের ব্যাসের তুলনায় প্রায় এক লক্ষ গুণ বেশি।

 পরমাণুর ব্যাস এক সেন্টিমিটারের দশ কোটি ভাগের এক ভাগের মত । তাহলে কেন্দ্রকের ব্যাসের পরিমাপ হল এক সেন্টিমিটারের প্রায় দশ লক্ষ কোটি ভাগের এক ভাগ। এখন প্রশ্ন হল, নিউট্রনরাতাে আধানহীন এবং প্রােটনরা সমধর্মী আধানযুক্ত। কুলম্ব-এর সূত্র অনুযায়ী প্রত্যেক প্রােটন অপর প্রােটনকে এক বিকর্ষণীবলে দূরে ঠেরে দেয়। সেক্ষেত্রে গায়ে গায়ে লেগে থাকা প্রােটনরা নিউট্রনের সংগে আবদ্ধ থাকে কি করে? প্রােটনদের বিকর্ষণী বল কেন্দ্রকে ধ্বংস করে দেয় না কেন? কেন্দ্ৰক আবিষ্কারের পরেই এই সমস্যাটি দেখা দিয়েছিল।

অবশেষে এই সমস্যাটি সমাধান করেন জাপানী পদার্থ বিজ্ঞানী হিডেকি য়ুকাওয়া (১৯০৭-৭১)। তিনি বলেন কেন্দ্ৰীনে বৈদ্যুতিক বল ছাড়া আরাে এক প্রকার শক্তিশালী বল আছে যে বল বৈদ্যুতিক আধানের উপর নির্ভর করে না কিন্তু সমস্ত প্রােটন ও নিউট্রনকে শক্ত করে বেঁধে রাখে। এই বলকে বলা হয় শক্তিশালী কেন্দ্রীয় বল (strong nuclear force) বা ‘সবল বল'। এ বলের পাল্লা ১০-১৩ সেঃ মিঃ। অর্থাৎ কেন্দ্রকের বাইরে এই বলের প্রভাব প্রায় শূন্য।

কিন্তু নিউক্লিয়াসের অভ্যন্তরে এই বল দুটি প্রােটনের মধ্যকার তড়িৎ চুম্বকীয় বলের চেয়ে অনেক শক্তিশালী। ১৯৪৬ সালে যুকাওয়ার ভবিষ্যদ্বাণী সত্য বলে প্রমাণিত হয় এবং প্রকৃতিতে একটি নতুন বল হিসেবে কেন্দ্রীয় বল প্রতিষ্ঠিত হয় । সবল বল ছাড়াও বিজ্ঞানীরা কেন্দ্রীনে আরাে একটি বলের সন্ধান পেয়েছেন । এই ‘বল' ‘দুর্বল কেন্দ্রীয় বল' বা ক্ষীণ বল, নামে অভিহিত । এই বলের পাল্লা ১০-১৬ সে. মি. মাত্র । এই সব প্রাকৃতিক বল সম্পর্কে আমরা পরবর্তীতে পুনরায় আলােচনা করব। নিউট্রন আবিস্কারের পর বিজ্ঞানীদের মনে হয়েছিল, হয়তাে কণা বিজ্ঞানের পরিসমাপ্তি ঘটেছে। তখন মনে হয়েছিল, যেহেতু পরমাণুরা ইলেকট্রন, প্রােটন ও নিউট্রন দ্বারা গঠিত তাই ইলেকট্রন প্রােটন নিউট্রনরাই প্রকৃত মৌলিক কণা ।

 কিন্তু আসলে এরাও মৌলিক নয়। দ্রুতগতিসম্পন্ন প্রােটনের সংগে প্রােটনের কিংবা ইলেকট্রনের সংঘর্ষ ঘটিয়ে বিজ্ঞানীরা দেখেছেন যে প্রােটন এবং নিউট্রন অবিভাজ্য নয়। এরা আরাে ক্ষুদ্রতর কণা দ্বারা গঠিত। ১৯৬১ সালে ক্যালটেকের পদার্থবিজ্ঞানী মারে গেলম্যান এই কণিকাগুলাের নাম দিয়েছেন কোয়ার্ক ।কথিত আছে, গেলম্যান ‘কোয়ার্ক' শব্দটি নিয়েছেন জেমস্ জয়েসের একটি হেঁয়ালী কবিতা থেকে। কোয়ার্ক কয়েক প্রকারের আছে। এদের আলাদা আলাদা নামে চিহ্নিত করা হয়েছে। তবে কোয়ার্কের নামকরণে এবারে আর বিজ্ঞানীরা চিরাচরিত নিয়মে গ্রীক ভাষার শরণাপন্ন হননি।
উত্তর প্রদান করেছেন (365 পয়েন্ট)

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি উত্তর
10 অক্টোবর 2021 "বিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Jayantika (1,520 পয়েন্ট)
0 টি উত্তর
10 অক্টোবর 2021 "বিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Jayantika (1,520 পয়েন্ট)
1 উত্তর
28 সেপ্টেম্বর 2021 "বিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Tawhid (5,013 পয়েন্ট)
1 উত্তর
28 সেপ্টেম্বর 2021 "সাধারণ জ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Captain Kanak (7,002 পয়েন্ট)
1 উত্তর
25 সেপ্টেম্বর 2021 "তথ্য ও প্রযুক্তি" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sujit Ray (10,251 পয়েন্ট)

17,573 টি প্রশ্ন

17,275 টি উত্তর

24 টি মন্তব্য

54,717 জন সদস্য

Answer Fair এ সুস্বাগতম, যেখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং গোষ্ঠীর অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন।
22 Online Users
0 Member 22 Guest
Today Visits : 29069
Yesterday Visits : 50545
Total Visits : 12693627
...